ডায়েরি

আমিও যেভাবে ছিলাম একদিন তোমাদের পৃথিবীতে

[আমাদের সমাজে মৃত্যু উপলক্ষে যেসব সামাজিক ও ধর্মীয় অপকর্ম হয়ে থাকে, সেগুলোর বিরুদ্ধে প্রতিবাদ হিসাবে এবং সেগুলোকে রোধ করার জন্য, আমার মৃত্যুর পরে কীভাবে কী করা হবে, সেটার জন্য আমি একটা ওসিয়তনামা লিখবো বলে ভাবছি। এই লেখাটি ‘আমার মৃত্যুর পরে’ শিরোনামে আমার সেই লিখিতব্য লেখাটির পরবর্তী পর্ব।] নাহ, একদিন নয়, ছিলাম বহুদিন, তোমাদের সুন্দর পৃথিবীতে। অনেক ভালোভাবে, সেখানে ছিলাম বহু…

বাকিটুকু পড়ুন

জীবন ও সমাজ

নারী অধিকার প্রসঙ্গে ন্যায্যতা ও সমতার ব্যাখ্যা

নৈতিকতা ও মানবিকতার নিরিখে সব মানুষ সমান। এটি মানুষের জন্মগত অধিকার। সে হিসাবে নারী ও পুরুষও সমানে সমান। সমান মানে একেবারেই সমান। মানুষ হিসাবে। প্রকৃতির সন্তান বা খোদার বান্দা হিসাবে। যদিও তাদের মধ্যে আছে তাৎপর্যপূর্ণ কিছু ভিন্নতা। কন্সিকোয়েন্টলি, দায়িত্ব ও অধিকারের ক্ষেত্রে বৈশিষ্ট্যমণ্ডিত কতিপয় স্বাতন্ত্র্য। সমস্যা হলো, নারী-পুরুষের এই প্রকৃতি প্রদত্ত গঠনগত পার্থক্যের অজুহাতে বিদ্যমান পুরুষতান্ত্রিক সমাজ নারীদের ওপর আরোপ…

বাকিটুকু পড়ুন

জীবন ও সমাজ

বিবেক হলো আবেগের শুদ্ধতম বহিঃপ্রকাশ

একটু আগে খেয়াল করলাম, একজন দৃশ্যত আবেগী পাঠক/দর্শক আমার ইউটিউব চ্যানেল “যুক্তি ও জীবন”-এর কমেন্ট সেকশনে লিখেছেন, “Sir, assalamu alykum, how are you??? I think you are well by the grace of Allah. My name is … I am from Gopalgong. Sir, I am following your lecture, though am not a student of philosophy. However, I want to know about…

বাকিটুকু পড়ুন

ইসলামী আন্দোলন

জামায়াত কেন সফল হতে পারেনি?

সামাজিক আন্দোলন তত্ত্ব অনেকভাবেই জামায়াতের ব্যর্থতার ব্যাখ্যা দিতে পারে। প্রথমত, রাজনৈতিক উচ্চাকাঙ্খার জন্য যে প্রতিযোগিতামূলক রাজনৈতিক কাঠামোর ভেতর জামায়াত প্রবেশ করেছিল তার ভিতর থেকে একটি সফল সামাজিক আন্দোলন চালানো সম্ভব ছিল না। পাকিস্তানের রাজনৈতিক অঙ্গন কখনোই জামায়াতের জন্য তেমন সুবিধার হয়নি। দ্বিতীয়ত, জামায়াতকে জামায়াত প্রণীত মূল রূপরেখা অনুসরণ না করার জন্য দোষারোপ করা যায়। মূল রূপরেখা অনুযায়ী কথা ছিল, জামায়াত…

বাকিটুকু পড়ুন

ইসলাম

কীভাবে বুঝবো কোন ধর্ম সঠিক?

গতকাল বিকেল ৩টা হতে রাত ৯টা পর্যন্ত টানা ৬ ঘণ্টার আলোচনা। সাথে তরুণ বয়সের কিছু পার্টিসিপেন্ট। ফ্রি স্টাইলের কথাবার্তা। ভিডিও রেকর্ড আছে প্রায় ৫ ঘন্টার। বরাবরের মতোই আনএডিটেড, এন্ড উইথ লো সাউন্ড-কোয়ালিটি। বিষয়বস্তু আকর্ষণীয় মনে হলে, কিংবা চবি দক্ষিণ ক্যাম্পাসের ১৫নং বাসায় বসে আমরা আসলে কী করি সেটা জানতে চাইলে, ডাউনলোড করে শুনতে পারেন। বেশি খারাপ লাগবে না। আশা করি।…

বাকিটুকু পড়ুন

জীবন ও সমাজ

ডিভোর্সি নারীদের সমস্যা

কোনো মেয়ের যখন ডিভোর্স হয় তখন সবাই ভাবে, দোষ মেয়েটিরই। অথচ, ডিভোর্স হওয়া বা দেয়াটা দোষের কিছু নয়। হ্যাঁ, সুখী-সুন্দর দাম্পত্য জীবন হলে তো খুবই ভালো। না হলে? ধুঁকে ধুঁকে মরা? ভুল মানুষের সাথে জীবন কাটিয়ে দেয়া? যে সমাজ নারীদেরকে পুরুষের সমকক্ষ তথা সমানে সমান মানুষ হিসাবে না দেখে পুরুষদের জীবনসঙ্গী হিসাবেই দেখতে অভ্যস্ত, সে সমাজে জামাইয়ের ঘরে উন্নতমানের দাসী…

বাকিটুকু পড়ুন

ইসলামী আন্দোলন

আন্দোলনের নতুন ধারা কেমন হওয়া উচিত

কাঙালের কথা বাসি হলেই ফলে। বলেছিলাম ‘রিফর্ম ফ্রম উইদিন’ হবে না। এখন সেটাই প্রমাণিত হলো। যারা রিফর্ম চেয়েছিলেন কিংবা এখনো চান, তাদের কর্তব্য হলো নতুন প্ল্যাটফর্ম গড়ে নেয়া। যে কোনো একজন প্রাক্তন সভাপতিই হতে পারেন নতুন উদ্যোগের ঝাণ্ডাবাহী, নকীব। কালেক্টিভ লিডারশিপের ভুল ফর্মুলা থেকে বের হয়ে আসতে হবে। সেল্ফ-ব্র্যান্ডিংকে নিতে হবে ইতিবাচকভাবে। পুরনো ও অকার্যকর কেন্দ্রনির্ভর ‘জায়ান্ট ট্রি’ মডেলের পরিবর্তে…

বাকিটুকু পড়ুন

ডায়েরি

আত্মোপলব্ধি

আত্মোপলব্ধি – ১: সুখ ও দুঃখবোধ যা কিছু পেয়েছ তা নিয়ে তৃপ্ত হও। সুখী হও। অন্যকে দোষারোপ করো না। যা পাওনি তা তোমার পাওয়ার ছিল না। যা কিছু আছে পাওয়ার সম্ভাবনা হিসেবে, তা পাওয়ার জন্য সচেষ্ট হও সর্বশক্তি দিয়ে। কিন্তু জেনে রাখো, চেষ্টাটাই তোমার অংশ। পাওয়াটা অনেক জটিল হিসাবের ব্যাপার। তাছাড়া, সবকিছু যে পেতেই হবে এমন তো নয়। একটা কিছু…

বাকিটুকু পড়ুন

সমসাময়িক

বাঙালি সংস্কৃতি ও ইসলামের মধ্যে লড়াই দেখানো প্রসঙ্গে

“আসসালামু আলাইকুম। আমাদের এখানে বাঙালি সংস্কৃতি ও ইসলামের মধ্যে একটি লড়াই দেখানো হয়। আমি একজনের সাথে আলোচনার সময় বলেছিলাম ধর্মের সাথে সংস্কৃতির বিরোধ অনেক জায়গায় হয়। যেমন– আমেরিকার খ্রিস্টানরা সমাকামিতা ও বিবাহবহির্ভূত সম্পর্ককে প্রত্যাখ্যান করে, যা এখন পসচিমা সংস্কৃতির অংশ। পরে ভাবলাম আমরা এই জিনিসটা আলোচনায় আনতে ভুলে যাই, সংস্কৃতির সাথে অন্য ধর্মেরও সংঘাত হতে পারে। এ ব্যাপারে আপনার মতামত…

বাকিটুকু পড়ুন

জীবন ও সমাজ

জীবনবোধসম্পন্ন মানুষ আর বৈষয়িক জনগণ

তারা দুজন বন্ধু। একজন সংসারী। তার আছে গাড়ি-বাড়ি সবকিছু। আরেকজন ভবঘুরে। তেমন কোনো স্টাবলিশমেন্ট নেই তার জীবনে। তো, কথাবার্তা আর তর্কাতর্কির এক পর্যায়ে তারা দুজনে একটা বিষয়ে বাজি ধরল। উড়নচণ্ডী স্বভাবের বন্ধুটির মতে– কারো সাথে যোগাযোগ না করে, কোথাও না গিয়ে, কোনো কথাবার্তা না বলে কোনো একজন ব্যক্তি সুদীর্ঘ সময় কাটিয়ে দিতে পারে। তার এই দাবির সাথে তীব্র দ্বিমত পোষণ…

বাকিটুকু পড়ুন