আজন্ম প্রেমিক, বিপ্লবী

[এটি কবিতা নয়।
ভাষার সৌকর্যে গাঁথা
একান্ত কিছু মনের কথা।]

হৃদয়ে তোমার ঘৃণা থাকুক, কিছুটা।
বিদ্বেষ রেখো না কারো জন্য।
উদ্বুদ্ধ হও ভালোবাসায়।
বিদ্বেষপোষণ করা মনোরোগের পরিচয়।
অপছন্দ থাকতে পারে,
থাকতে পারে ঘৃণা,
অসত্য আর অন্যায়ের বিরুদ্ধে।
যা থাকা সমীচীন নয়,
তা হলো ব‍্যক্তিগত বিদ্বেষ।
আসো, উদ্বুদ্ধ হই, পরিচালিত হই
ঋদ্ধ হই, সিক্ত হই ভালোবাসায়।
ভালোবাসাই হোক
চালিকাশক্তি।

আসো, নিজেদের মুক্ত করি
জাতিগত বিদ্বেষ থেকে,
সাম্প্রদায়িকতার বিদ্বেষ থেকে,
ধর্মীয় বিভেদের বিদ্বেষ থেকে,
ঠুনকো আভিজাত্য আর
অর্থনৈতিক শ্রেণীবৈষম্যের বিরুদ্ধে
অযাচিত বিদ্বেষ থেকে।
যারা বাস্তববাদী,
যারা জীবনবাদী,
তারাই শুধু হতে পারে
বিদ্বেষের কলুষতা থেকে মুক্ত।

অন্তরের সংকীর্ণতা থেকে
যারা মুক্ত,
ঘৃণা-বিদ্বেষ থেকেও
তারা মুক্ত।
তারাই শুধু স্বাধীন,
তারাই শুধু সত্যিকারের মানুষ।
জনসংখ্যার হিসাব-খাতায়
নিবন্ধিত একজন হলেই
মানুষ গণ‍্য হওয়া যায় না।
মানুষ হতে হয় মানবিক গুণে,
আচরণের পরিচয়ে।

বিদ্বেষপ্রবণ লোকেরা
কখনো মানবিক হতে পারে না।
মানবিক হতে হলে চাই,
হৃদয়ের উদারতা অবারিত।

আসো, শত্রু মিত্র সবার
মঙ্গল কামনা করি।
সবার জন্য হই আন্তরিক,
অকৃত্রিম, শর্তহীন কল্যাণকামী।
যার বিরোধিতায় তুমি
ক্লান্তিহীন, নির্দয়;
তোমার বিবেচনায় যিনি ন‍্যায়চ‍্যূত, পাপী;
তার চেয়ে তোমার অবস্থা
কিছুমাত্র ভালো নয়। জানি।
নিতান্ত সৌভাগ্যক্রমে তুমি
ভালো হতে পেরেছো।
এমন নয় যে,
শুধুমাত্র নিজগুণে
অন্তরালের সত্যকে তুমি
জানতে পেরেছো।
যদি মনে করো,
কেবলই নিজ যোগ্যতায় তুমি
সত‍্যকে খুঁজে পেয়েছো,
চিনতে পেরেছো মিথ্যার কৃত্রিমতাকে,
তাহলে, ভুল করছো তুমি।

আদর্শবাদী হওয়ার জন্য
গৌরব করার কিছু নাই।
প্রত্যেক সত্যবাদী, ন‍্যায়পন্থীর উচিত
বিনয়ী হওয়া, কৃতজ্ঞ হওয়া।
আত্মপ্রত্যয়ী অথচ নিরহংকারী ,
এমন কৃতজ্ঞচিত্ত লোকেরাই
হতে পারে শুদ্ধ অমায়িক, অকপট।
যখন-তখন যে কারো উপর
চড়াও হওয়ার মত
দুর্বিনীত ঔদ্ধত্য যাদের,
বিদ্বেষ-ই তাদের অবলম্বন।
কাউকে তারা ভালবাসতে পারে না।
বিদ্বেষের বিধ্বঃসী সংক্রমণে
তারা জর্জরিত।
তারা অসুস্থ।
তুমি কেন তাদের মতো হবে?

আসো, ভালোবাসি সবাইকে।
মিত্রের দৃষ্টি দিয়ে দেখি
পৃথিবীর সবকিছুকে।
ভালোবাসা হোক
তোমার আমার জীবনবোধের পরিচয়,
অদম্য প্রেরণা।
ভালোবাসা হোক আমাদের
অবারিত, অফুরন্ত।
আসো, ভালবাসি গণহারে, সবাইকে।
সব অসত্য আর
অন‍্যায়ের বিরুদ্ধে দাঁড়াই, প্রাণপণে
বিদ্বেষ মুক্ত হয়ে।
কারা কারা আছো
আপাদমস্তক ফুলটাইম জীবনবাদী?
আসো, যুথবদ্ধ হই
নিজেদের যারা মনে করো
আজন্ম প্রেমিক, বিপ্লবী।

ফেসবুক লিংক

মোহাম্মদ মোজাম্মেল হক

নিজেকে একজন জীবনবাদী সমাজকর্মী হিসেবে পরিচয় দিতে সবচেয়ে বেশি স্বাচ্ছন্দ্যবোধ করি। চট্টগ্রাম বিশ্ববিদ্যালয়ের দর্শন বিভাগে পড়াই। চাটগাইয়া। বিশ্ববিদ্যালয় ক্যাম্পাসে থাকি।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *