চবিতে ব্যাপক মারামারি চলছে: এইমাত্র দেখে এলাম

এই মাত্র ফ্যাকাল্টি হতে এসেছি। সকাল সাড়ে ১০টা হতে ছাত্রদের সাথে পুলিশের ব্যাপক সংঘর্ষ হচ্ছে। চাকসু কেন্দ্রের কাছে ছাত্রদের মিছিলে পুলিশ বাধা দিলে ছাত্ররা চাকসু ভবনে ব্যাপক ভাংচুর করে। কয়েকজন পুলিশ কনস্টেবলকে ব্যাপকভাবে মারপিট করে পার্শ্ববর্তী লেকের খাদে ফেলে দেয়। ওখানে পুলিশ তখন অনেক কম ছিল। এরপর প্রশাসনিক ভবনের দিক থেকে আরো পুলিশ এসে একশন শুরু করে। এমনকি ছাত্রীদেরকেও পেটাতে থাকে। মুহুর্মুহু টিয়ার গ্যাসের শেল নিক্ষেপ ও ফাঁকা গুলি ছুঁড়তে থাকে। ছাত্ররাও নজিরবিহীনভাবে সকল ফ্যাকল্টি ও অফিসে মারাত্মক রকমের ভাংচুর চালায়। বুঝতে পারছি না তারা (বাহ্যত ‘সাধারণ’ ছাত্র) মারামারির জন্য এতো বানানো অর্থাৎ সাইজ করা লাঠি কোথায় পেল! ছাত্ররা এমনকি পরীক্ষা নিয়ন্ত্রক দপ্তরের ভেতরে ঢুকে টেব্যুলেশন শীটে আগুন ধরিয়ে দেয়ার চেষ্টা করে। মেরিন সায়েন্সের প্রফেসর কাদের স্যারের দুঃসাহসিক ভূমিকার কারণে সেটি রক্ষা পায়।

ঘটনা যখন শুরু হয় তখন আমি আর্টস ফ্যাকাল্টির তিন তলায় এমএর একটি কোর্সে ক্লাশ নিচ্ছিলাম। দেড়টার দিকে প্রশাসনিক দায়িত্বে নিয়োজিত উপস্থিত শিক্ষকদের অনুমতি নিয়ে আমার এক কাজিন স্টুডেন্ট ও দুজন সহকর্মীকে নিয়ে অনেকটা দৌড়াতে দৌড়াতে দক্ষিণ ক্যাম্পাসস্থ বাসায় এসে পৌঁছি। পথিমধ্যে ভিসি হিলের গোড়ায় ছাত্রদের এক সমাবেশের মধ্যে পড়ি। তারা আমার ইন্টারভিউ রেকর্ড করার শর্তে যেতে দেয়। বলেছি, এটি একটি অভূতপূর্ব ঘটনা। তারা চাচ্ছিল আমি তাদের আন্দোলনকে যৌক্তিক বলে মেনে নেই। আমি বার বার বলেছি, ইট্স আপ টু ইউ। অ্যাজ এ টিচার আই হ্যাভ নাথিং টু সে। বাট আই এম ডিপলি শকড টু সি হোয়াটএভার হেপেন্ড হিয়ার টুডে। ইট্স টোটালি আন প্রিসিডেন্টেড।

অনেক পুলিশ, শিক্ষক ও স্টুডেন্ট আহত হয়েছে। জানি না স্পেসিফিক্যালি কে বা কারা এর জন্য মূলত দায়ী! তবে আন্দোলনকারীরা দৃশ্যত অত্যন্ত সংঘটিত ও স্পষ্টত বাম ঘরনার। আই ওয়াজ অনলি স্কেয়ারড ফর মাই ল্যাপটপ…! ইতোমধ্যে সবগুলো হল বন্ধ ঘোষণা করা হয়েছে। চট্টগ্রাম বিশ্ববিদ্যালয়ে আবার শুরু হলো সেশনজট, বহিস্কার ও আন্দোলনের পর্ব…!

পোস্টটির সামহোয়্যারইন লিংক

মোহাম্মদ মোজাম্মেল হক

নিজেকে একজন জীবনবাদী সমাজকর্মী হিসেবে পরিচয় দিতে সবচেয়ে বেশি স্বাচ্ছন্দ্যবোধ করি। চট্টগ্রাম বিশ্ববিদ্যালয়ের দর্শন বিভাগে পড়াই। চাটগাইয়া। বিশ্ববিদ্যালয় ক্যাম্পাসে থাকি।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *