বঙ্গভবনের বিয়ে, আমাদের মানবিক মূল্যবোধ ও রাজনীতি

আজ বঙ্গভবনে প্রধানমন্ত্রীর তত্ত্বাবধানে পুরনো ঢাকার সাম্প্রতিক অগ্নিকাণ্ডে নিহত পরিবারের বেঁচে যাওয়া সদস্যাদের বিয়ে সম্পন্ন হয়েছে। মিডিয়ার কল্যাণে এই অনুষ্ঠানের খুঁটিনাটিও আপনারা অনেকেই জানেন।

এটি কি আসলেই মানবিক আয়োজন হয়েছে?

বিয়েটাই যে বাঙ্গালী ললনাদের জীবনের আসল ঘটনা, পরম চাওয়া, লক্ষ্য – এমনকি পরিবারের সবার জীবনের বিনিময়ে হলেও – এটি বুঝা গেল। ক’দিন পরে হলে কি এদের জীবন বৃথা হয়ে যেত?

কি অমানবিক! ভাবতেই পারি না!

পরিবারের সবার অগ্নিদগ্ধ হয়ে মৃত্যুর সপ্তাহখানেকের মধ্যে বঙ্গভবনের বিয়ের আসর!

প্রধানমন্ত্রীর জন্য অধিকতর শোভন হতো এদের কর্ম ও বাসস্থান নিশ্চিতের ঘোষণা দেয়া।

অতি সস্তা রাজনীতি হয়ে গেল! আমার মতে।

পোস্টটির সামহোয়্যারইন লিংক

মোহাম্মদ মোজাম্মেল হক

নিজেকে একজন জীবনবাদী সমাজকর্মী হিসেবে পরিচয় দিতে স্বাচ্ছন্দ্যবোধ করি। চট্টগ্রাম বিশ্ববিদ্যালয়ে ফিলোসফি পড়িয়ে জীবিকা নির্বাহ করি। গ্রামের বাড়ি ফটিকছড়ি, চট্টগ্রাম। থাকি চবি ক্যাম্পাসে। নিশিদিন এক অনাবিল ভবিষ্যতের স্বপ্ন দেখি। তাই, স্বপ্নের ফেরি করে বেড়াই। বর্তমানে বেঁচে থাকা এক ভবিষ্যতের নাগরিক।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *