পরজীবন বিশ্বাসের চেয়ে বেশি জাগতিক কিছু নাই

বেঁচে আছি তাই তো বড় কথা
মরনের আগে যতটুকু সম্ভব এগিয়ে যাওয়া
এক একটা দিগন্ত পেরিয়ে অনন্তের পানে

প্রশান্ত প্রদোষে কিংবা বিপন্ন দুপুরে অথবা শ্রান্ত রাত্তিরে
প্রতিটা নিঃশ্বাসে অনুভব করি অন্তর থেকে
কৃতজ্ঞতা…!
প্রতিটা দেহকোষ ও রক্তকণিকা
স্নায়ুর অন্তহীন চঞ্চলতা
সব যেন অবিরত বলে, শোকর আলহামদুলিল্লাহ…!

বেঁচে আছি তাই তো বড় কথা
মহাজাগতিক লটারি জেতা
এই একটা মাত্রই তো জীবন…

হতেও তো পারতাম মাটি কিংবা পাখি কিংবা ফুল-লতা
অথবা কিছু না হয়ে হতে পারতাম এক অস্তিত্বহীন শূন্যতা।

জীবন… তাও মানুষেরই জীবন

গুহাবাসী না হয়ে সভ্যতার এই অগ্রগামী সময়ে
সম্ভাবনার এই দেশে
সবচেয়ে সুবিধাজনক এমন এক পেশায়
ঐতিহ্য সমৃদ্ধ এক পরিবারে…।

ছোট ছোট তুচ্ছ বিষয়গুলো ভীষণ দাগ কেটে যায় মনে
অন্তরের অন্তঃস্থল থেকে অনুভব করি প্রগাঢ় কৃতজ্ঞতা

বেঁচে থাকার আনন্দে আমি বিভোর
জীবনের মাদকতায় মাতাল

মৃত্যুকে ভয় পাই
সত্যি কথা হলো, মৃত্যুকে জয় করবার কিছু নাই

জীবন হচ্ছে জয়ের ব্যাপার, মৃত্যু হলো সাক্ষাৎ পরাজয়

মৃত্যুকে যারা জয় করার কথা বলে
ওসব তাদের ভণ্ডামী
‘মৃত্যুর সাথে পাঞ্জা লড়ার’ প্রলাপে আমি বিশ্বাস করি না

যারা এমন কথা বলে নিজেদের সম্পর্কে
অথবা অন্য কারো ব্যাপারে,
তারা মিছামিছি সান্তনা দেয় নিজেদের
যেন তারা শিশু অথবা ভয় পাওয়া কোনো পথিক।

মৃত্যুকে আলিঙ্গনের কিছু নাই
মৃত্যু গ্রাস করে আমাদের
ইচ্ছার বিরুদ্ধে টেনে নিয়ে যায় চেতনাহীনতার অতল গহ্বরে
অথবা নতুন ধরনের কোনো চৈতন্য প্রান্তরে।

জীবনের এই পরিণতি অনিবার্য
এই অর্থে বলতে পারি মৃত্যুকে ভয় পাওয়ার কিছু নাই
তবুও আমি মৃত্যুকে ভয় পাই

অর্ধ শতাব্দীর এই জীবনকালের পরিক্রমায়
একটাই কামনা বলতে পারেন, নির্লজ্জ আকুতি-
বাঁচতে চাই অন্তত একটা মুহূর্ত হলেও বেশি,
উপভোগ করতে চাই এ জীবনকে
শেষ পর্যন্ত অথবা যতটুকু সম্ভব
হোক সেটা ভোগে কিংবা ত্যাগে।

আমার ভাবনায়
পরজীবন যেন এ জীবনেরই ধারাবাহিকতা
এ নতুন কিংবা আলাদা কিছু নয়।

এ জীবনে এই পৃথিবীতে
যা কিছু আমরা সুন্দরতর হিসাবে কল্পনা করি
যা কিছু নিয়ে আমরা স্বপ্ন দেখি
যা আমাদের আকুল করে দিবানিশি
যা কিছু আমরা সত্য মনে করি
যা আমরা কামনা করি,
সাজাতে চাই যা কিছু দিয়ে আমাদের এই জীবন
সে সব নিয়ে তো স্বর্গ,
সে সবেরই কাব্যিক রূপায়ণ যেন
পরজীবনের ধারণা।

আমার দৃষ্টিতে তাই মানুষের জীবন-তৃষ্ণার
এই আদিমতার অপর নাম পরজীবনের কল্পনা
পরজীবন বিশ্বাসের চেয়ে বেশি জাগতিক কিছু নাই

এ জীবন আর পরজীবনে বিশেষ কোনো পার্থক্য নাই
– এ বিশ্বাস নিয়েই আছি বেঁচে

অস্তিত্বের চেয়ে বড় কোনো সত্য নাই
জীবনের অনির্বচনীয়তার চেয়ে বড় কোনো অনুভব নাই।

কেউ চায় না নিঃশেষ হতে, এমনকি জড়বাদীরাও না

তাই তো তারা মানবতার কথা বলে তাদের মতো করে
শ্বাশত সত্য আর সুন্দরের জন্য লড়াই করে
যতই তারা উত্তরাধুনিকতার কথা বলুক

ভেতরে ভেতরে আমরা সবাই কোনো না কোনো ধরনে
জীবনের ধারাবাহিকতায় বিশ্বাসী
যার যার মতো করে আমরা বিশ্বজনীন চিরন্তনতায় আস্থাশীল।

আমিও তাই স্থায়ী হতে চাই, চাই না নিশ্চিহ্ন হতে
‘রেখে যেতে চাই কীর্তিগাঁথা’ – এমনও নয়
স্রেফ, থেকে যেতে চাই

মনে হচ্ছে আজ
সবচেয়ে বড় সত্য হলো এই অকপট উচ্চারণ-
বাঁচতে চাই, বেঁচে থাকতে চাই
থেকে যেতে চাই সুন্দর এই পৃথিবীতে।

তা যদি না হয়
সময় যদি ফুরাবেই তবে
থেকে যেতে চাই জীবনের ভিন্ন কোনো রূপে
অন্য কোথাও হয়তোবা অন্য কোনোভাবে

ফেসবুক লিংক

মোহাম্মদ মোজাম্মেল হক

নিজেকে একজন জীবনবাদী সমাজকর্মী হিসেবে পরিচয় দিতে সবচেয়ে বেশি স্বাচ্ছন্দ্যবোধ করি। চট্টগ্রাম বিশ্ববিদ্যালয়ের দর্শন বিভাগে পড়াই। চাটগাইয়া। বিশ্ববিদ্যালয় ক্যাম্পাসে থাকি।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *