শিরোনামহীন অনুভব

সম্পর্ক যত নিকটতর, সম্পর্কের দায় তত ব‍্যাপকতর, তিক্ততা তৈরির আশংকাও তত বেশি।

যত দূরের তত ভালো। যতটা কাছের সম্পর্ক ততটাই তা ঝুঁকিপূর্ণ।

সব সম্পর্কই মূলত দেয়া-নেয়ার ব‍্যাপার। নিঃস্বার্থ সম্পর্ক বলে কিছু নাই।

ভালোবাসার সম্পর্কও কিছু না কিছু দেয়া-নেয়ার ব‍্যাপার।

অথচ,

নিকটতর সম্পর্কের ক্ষেত্রে মানুষ কেমন যেন নির্লিপ্ত হয়ে পড়ে।

সামাজিক সম্পর্ক রক্ষায় মানুষ যতটা যত্মবান হয় ব‍্যক্তিগত সম্পর্কের দায় মিটানোর ব‍্যাপারে ততটা সিরিয়াস বা কর্তব্যনিষ্ঠ হয় না।

কারো সমর্থক বা ভক্ত হওয়া যতটা সহজ ও মধুরতর, সেই ব‍্যক্তির বাস্তব অনুসারী বা সহযোগী হওয়া ততটা সুখময় ও সুন্দর হয় না।

কেননা,

দ্বিতীয় ক্ষেত্রে সুনির্দিষ্ট দায়দায়িত্ব থাকে। একই কারণে,

প্রেম করা সহজ, সংসার করা কঠিন।

মাঝে মাঝে, নৈকট্য সম্পর্ককে ভঙ্গুর (vulnerable) করে তোলে। ব‍্যাপারটা কেমন যেন প‍্যারাডক্সিক‍্যাল।

স্মৃতিচারণ বা রোমান্টিক কল্পনার মাদকতা, বাস্তব সাক্ষাৎ-সম্পর্কে, অনেক সময়ে ক্রমে ফিকে হয়ে যায়।

অযত্ম আর একতরফা অতি প্রত‍্যাশার চাপে এক সময়ের সুস্থ সম্পর্কের নিরব মৃত্যু ঘটে।

নিহত সম্পর্কের বোঝা বয়ে নিত‍্য বসবাসের দুর্ভাগ্য, অতিবড় কষ্টের।

উপায় কী? এমন পরিস্থিতির যারা সম্মুখীন?

হ‍্যাঁ, তারা কথাবার্তা বলবে মনখুলে। সমস্যা যে হয়েছে, তা বুঝবে। মেনে চলবে সমাজস্বীকৃত সম্পর্কসীমাগুলোকে।

নিরপেক্ষ (?) মিডিয়া মোগল প্রথম আলো প্রযোজিত ‘কাছে আসার গল্পগুলো’র পরিণতি লাভ করে দুঃসহ তিক্ততায়।

দায়-দায়িত্বহীন বন্ধুত্বের আবেগ সহসাই ফুরায়।

কথাটা সত‍্য, sometimes in relation, the distant the better; the closer the bitter.

 

অতিকাছের একজন
হতে পারতো যে,
সে থাকে বহুদূর।
মন্দ কী?

সাক্ষাতে আহত অনুভবের চেয়ে
দূরে থাকাই তো ভালো।
তাতে করে অন্তত
আশাটা বেঁচে থাকে।

নিহত সম্পর্কের চেয়ে
সুখস্বপ্নটা সজীব থাকাই তো ভালো

মাঝে মাঝে
মিলনের চেয়ে বিরহ মধুরতর
পাওয়ার চেয়ে
না পাওয়ার সুখ মধুময় বেশি।

হরমোনসমৃদ্ধ নবীনেরা যদিও
এটা বুঝে উঠার উঠতে পারার মতো
পর্যাপ্ত অবকাশ পায় না।

কথায় বলে,
অভিজ্ঞতার বিকল্প নাই।

ফেসবুকে প্রদত্ত মন্তব্যপ্রতিমন্তব্য

Hosneara Riju: And sometimes in relation the distant the bitter, the closer the better. And some respected, faithful relation in close or distance, both times better. On the other side both times maybe bitter. For those who understand easily is very better for them. They do not know how some relations is ever best.

Mohammad Mozammel Hoque: … provided the relation is maintained within given boundaries.

Abul Kalam Azad Atu: Excellent!

Mohammad Mozammel Hoque: একসিলেন্ট না বলে আমার কোন্ কথাকে আপনি ‘দুইসিলেন্ট’ বলেছেন? ভালো থাকেন চেয়ারম্যান সাহেব।

Jahid Limon: রিলেশনের পোস্ট-মর্টেম করে ফেললেন স্যার। ভালো লাগলো। অনেকগুলো বাস্তব সত্য তুলে ধরেছেন।

Mohammad Mozammel Hoque: লেখেছিলাম অনেক বড়। তথাকথিত স্মার্টফোনে গুঁতিয়ে গুঁতিয়ে। জাস্ট পোস্টানোর আগে কীভাবে যেন ফুটে গেলো। জিদ করে আবার সংক্ষেপে লেখলাম।

Jahid Limon: বরাবরই আপনার শব্দের গাঁথুনিতে অবাক হই আমি। এতো সুন্দর সাবলীলভাবে আপনি কত জটিল বিষয়গুলোকে তুলে ধরেন সহজভাবে। ধন্যবাদ স্যার, জীবনবোধের জটিল ধাধাগুলোকে সহজ করে তুলে ধরার জন্য।

Mohammad Mozammel Hoque: সম্পর্ক মাত্রই দ্বিপাক্ষিক কিছু। সমস্যা হয়, কোনো পক্ষ যখন স্বীয় দায়িত্বকে অবহেলা করে, অথচ নিজের অধিকার নিয়ে টানাটানি করে। সমাধান হলো, দায়িত্বপালনকে ফোকাস করে প্রত‍্যাশাকে ন‍্যূনতম পর্যায়ে সীমিত রাখা। আমি অবশ্য একতরফা সেক্রিফাইসের বিরোধী। কেননা, সেটা প্রকৃতি ও বাস্তবতার পরিপন্থী।

Azadi Afroz: স্যার, এর অর্থ কি কোনো সম্পর্ককে সম্পূর্ণতা নেই? কিছুটা অসম্পূর্ণতা সম্পর্ককে সুস্বাস্থ্য দেয়?

Mohammad Mozammel Hoque: ব‍্যর্থ পাওয়ার চেয়ে না পাওয়া ভালো। পাওয়াকে অর্থবহ বা স্বার্থক হিসেবে গড়ে তুলতে চাইলে অধিকার দাবীর পাশাপাশি দায়িত্বপালনও করতে হবে।

Azadi Afroz: তাহলে স্যার সম্পর্কের মূলস্তম্ভ হলো দেওয়া আর পাওয়া। অর্থাৎ দায়িত্ব পালন করে সম্পর্ক নামক মরীচিকা পাওয়া যায়।

Mohammad Mozammel Hoque: সম্পর্ক মাত্রই বাস্তব, মরীচিকা নয়, যদি না সেখানে উদাসীনতা বা অতিপ্রত‍্যাশা ভর করে।

লেখাটির ফেসবুক লিংক

মোহাম্মদ মোজাম্মেল হক

নিজেকে একজন জীবনবাদী সমাজকর্মী হিসেবে পরিচয় দিতে স্বাচ্ছন্দ্যবোধ করি। চট্টগ্রাম বিশ্ববিদ্যালয়ে ফিলোসফি পড়িয়ে জীবিকা নির্বাহ করি। গ্রামের বাড়ি ফটিকছড়ি, চট্টগ্রাম। থাকি চবি ক্যাম্পাসে। নিশিদিন এক অনাবিল ভবিষ্যতের স্বপ্ন দেখি। তাই, স্বপ্নের ফেরি করে বেড়াই। বর্তমানে বেঁচে থাকা এক ভবিষ্যতের নাগরিক।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *